রান্না-ঘর

নতুন রেসিপি – মাত্র ১০ মিনিটে সকালের ৫ নাস্তা

নতুন রেসিপি - মাত্র ১০ মিনিটে সকালের ৫ নাস্তা

সকালের নাস্তায় কী খাবেন বা কী খাওয়াবেন এটা নিয়ে যন্ত্রণায় পড়েন প্রতিদিন? কেউ কেউ তাড়াহুড়ায় নাস্তাই করেন না, আবার একই নাস্তা রোজ রোজ প্রতিদিন ভালো লাগে? কর্ণফ্রেক্স বা পাউরুটি-জেলীও মুখে রোচে না অনেকেরই। কোন কোন খাবার তৈরিতে রান্না বান্নার কোন ঝামেলাই নেই। কিন্তু খেতে দারুণ সুস্বাদু এই খাবারগুলো আপনাকে বোর করবে না মোটেই। রোজই নাস্তায় খেতে পারবেন নিত্য নতুন সব খাবার!

আসুন জেনে নেই এমন ৫টি দারুণ রেসিপি –

১। সকালের নাস্তায় একটি দারুণ খাবার হচ্ছে চিঁড়া ও দই। কিন্তু সেই এক ঘেয়ে চিঁড়া-দই কতদিন ভালো লাগে? জেনে নিন একটা মজার কৌশল। পানি দিয়ে ধুয়ে রাখা চিঁড়ার মাঝে ফেটানো দই দিন, সাথে যোগ করুন নারকেল কোরা, বাদাম, শুকনো বা তাজা ফল, এক চিমটি লবণ ও সামান্য দুধ। ব্যাস, তৈরি আপনার দারুণ হেলদি ব্রেকফাস্ট!

২। সাধারণ প্যানকেক তৈরিতে অনেক ঝামেলা মনে হয়। ফ্রিজে রাখা রুটি দিয়ে ঝটপট তৈরি করে ফেলুন ব্রেড প্যানকেক। রুটি গুলো দুধে ভিজিয়ে নরম করে একেবারে ভর্তা বানিয়ে নিন। সাথে ডিম ও লবণ যোগ করুন। পাতলা করতে আরও দুধ দিন। এবার আপনার ইচ্ছা মত চিনি, অথবা পেঁয়াজ মরিচ ও মশলা যোগ করে তৈরি করে নিন পাতলা প্যানকেক। স্বাদে কিন্তু দারুণ এই খাবারটি!

৩। নুডুলস তৈরি ঝামেলা লাগে, এদিকে নাস্তায় ভারী কিছু খেতে চান? তাহলে তৈরি করে ফেলুন চিঁড়ার পোলাও। চিঁড়া ধুয়ে নিন। এরপর প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচ একটু ভেজে একটি ডিম ঝুরি করে নিন। চাইলে সবজি দিতে পারেন। সামান্য জিরা ও মরিচ গুঁড়ো দিয়ে ভাজুন। চিঁড়া দিয়ে দিন। একটু ভেজেই নামিয়ে নিন। তৈরি মজাদার চিঁড়ার পোলাও।

৪। সকালের নাস্তায় ওটস খেতে চান, কিন্তু সকালে রান্না করার সময় নেই? রাতে ঘুমাবার সময় ওটসের সাথে পরিমাণ মত দই ও দুধ দিয়ে, সাথে সামান্য চিনি ও কিসমিস দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। চাইলে ফ্রিজেও রাখতে পারেন। সারা রাত তরল শুষে ওটস নরম হয়ে যাবে। সকালে আপনি পাবেন একদম তৈরি ব্রেকফাস্ট! চাইলে ফল যোগ করে খেতে পারেন।

৫। ডিম আর রুটি খেতে খেতে বিরক্ত হয়ে গেছেন? তৈরি করে ফেলুন দারুণ স্বাদের এক ফ্রিটাটা। একটি বা দুটি ডিমকে লবণ ও দুধ দিয়ে গুলে নিন। এবার প্যানে তেল বা মাখন অল্প আঁচে গরম করে এই ফেটানো ডিম দিয়ে দিন। এবার এই ডিমের ওপরে দিন আপনার যা ইচ্ছা। গাজর, ক্যাপসিকাম, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, ব্রকলি দিতে পারেন। সসেজ টুকরো, ফ্রিজে রাখা রান্না কোরা মুরগি বা গরুর মাংস, চিংড়ী, এমনকি ফ্রিজে চিকেন ফ্রাই থাকলে সেটাও টুকরো করে দিতে পারেন। দিতে পারেন চীজ কিংবা রুটি টুকরাও।

আপনার যা ভালো লাগে উপরে ছড়িয়ে দিন। একটু ভাজা জিরার গুঁড়ো, ধনে পাতা বা চাট মসলা দিতে পারেন দেশী স্বাদ চাইলে। এরপর ঢাকনা লাগিয়ে অল্প আঁচে রাখুন। নিচে জমে গেলে এবং ওপরে ডিম রান্না হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলুন। চাইলে ওভেনে ৫ মিনিট বেকও করে নিতে পারেন। এটি নিজেই একটি সম্পূর্ণ ডিশ, এর সাথে অন্য কিচ্ছু প্রয়োজন নেই। আপনি চাইলে এর সাথে যে কোন কিছুই খেতে পারেন।

সর্বোচ্চ পঠিত

Quis autem vel eum iure reprehenderit qui in ea voluptate velit esse quam nihil molestiae consequatur, vel illum qui dolorem?

Temporibus autem quibusdam et aut officiis debitis aut rerum necessitatibus saepe eveniet.

কপিরাইট © ২০১৫ ভোরের পাখি - কে.কে.এন মিডিয়া এর একটি প্রচেষ্টা

To Top