জীবনধারা

তৈলাক্ত ত্বক থেকে মুক্তি মেলাবে ঘরে তৈরি সাধারন ভাপ !

তৈলাক্ত ত্বক থেকে মুক্তি মেলাবে ঘরে তৈরি সাধারন ভাপ !

গরমকাল আসার সাথেই আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে চেহারার পরিবর্তন হতে থাকে। রোদ, ধুলাবালি সবকিছু মিলে যা নয় তা অবস্থা। আর যাদের ত্বক তৈলাক্ত তাদের অবস্থা তো একটু বেশিই করুণ। আর এই ত্বক ভালো রাখতে যদি আপনাকে ঘন্টার পর ঘন্টা পার্লার বা স্যালুনে কাটাতে না হয়, তাহলে কত ভালো হয় তাইনা?

আজকে আপনাদের জানবো তৈলাক্ত ত্বক থেকে মুক্তি পেতে ব্যাবহার করতে পারেন এমন এক অভিনব ভাপের কথা। হাতের কাছে থাকা কিছু জিনিস দিয়ে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলতে পারবেন এই ত্বক উপকারী ভাঁপ।

এই ভাঁপ নিয়ে ভয় পাবার কিছু নেই কারন এটি সম্পুর্ন প্রাকৃতিক এবং আপনার ত্বকের কোন ক্ষতি করবেনা। আপনার ত্বক ভালো রাখতে চাইলে সপ্তাহে একবার এই চিকিৎসা অর্থাৎ এই প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। আর, ত্বকে ব্রণের সমস্যা থাকলে সপ্তাহে দুইবার।

যা যা লাগবেঃ

এই ভাঁপ তৈরি করতে আপনার লাগবে-
হলুদ গুড়া।
দারুচিনির খন্ড।
গ্রিন টির পাতা।
পানি।

প্রথম ধাপঃ শুরুতে আপনার প্রিয় ক্লিনজার দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে নিন। ত্বকে মেকআপ বা অন্য ক্রিম দেয়া থাকলে তা তুলে ফেলুন। একটি বড় পাত্রে হাফ লিটার বা ১ লিটার পানি দিয়ে চুলায় বসান। পানি ফুটে উঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুণ।

দ্বিতীয় ধাপঃ এবার এক টেবিল চামচ হলুদ গুড়া, ৩/৪ খন্ড দারুচিনি আর এক টেবিল চামচ গ্রিন টি পানিতে দিয়ে দিন এবং আগুন বন্ধ করে দিন।
গ্রিনটি ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। এটি ত্বককে নমনীয় ও উজ্জ্বল করে। ত্বকের রোদে পোড়া ভাব দূর করে। গ্রিন টি আপনার ত্বককে বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করবে এবং সুন্দর ত্বক ধরে রাখতে সহায়ক হবে।

হলুদের গুড়াতে আছে সালফার যা ত্বকের ইনফেকশনের ক্ষেত্রে এন্টিবায়োটিক হিসেবে কাজ করে। আপনার ত্বক থেকে ব্রণ দূর করতে একটি প্রাকৃতিক এন্টিবায়োটিক থেকে ভালো আর কি হতে পারে?
দারুচিনিও ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। কেননা এটি ত্বকের ভেতরে প্রবেশ করে কোষগুলোকে সুন্দরভাবে গঠনে সাহায্য করে থাকে।

তৃতীয় ধাপঃ একটি পরিষ্কার চামচ নিয়ে মিশ্রণটিকে নাড়তে থাকুন। মিশ্রণটির রঙ গাঢ় হলুদ দেখে ভয় পাবার কিছু নেই।
চতুর্থ ধাপঃ একটা বড় তোয়ালে দিয়ে আপনার মাথাটা ঢেকে দিন এবং মুখ পাতিলের উপর রাখুন। (খেয়াল রাখবেন ভাঁপ যেন সহনীয় পর্যায়ের হয়)
চোখ বন্ধ করুন। শান্ত ও অবসাদ মুক্ত থাকুন এবং ত্বকে ভাঁপ নিন। আপনার যদি সেনসিটিভ ত্বক হয় তাহলে ৮-১০মিনিট ভাঁপ নিন। আর তৈলাক্ত ও ব্রণযুক্ত ত্বক হলে ২০মিনিট।

যদি ভাঁপ নিতে অস্বস্তি বোধ করে থাকেন তবে একটু সময় বিরতি নিয়ে নিন। তাহলে আর দেরি না করে হাতের কাছে থাকা জিনিসগুলো দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দারুণ উপকারী এই ভাঁপ।

সর্বোচ্চ পঠিত

Quis autem vel eum iure reprehenderit qui in ea voluptate velit esse quam nihil molestiae consequatur, vel illum qui dolorem?

Temporibus autem quibusdam et aut officiis debitis aut rerum necessitatibus saepe eveniet.

কপিরাইট © ২০১৫ ভোরের পাখি - কে.কে.এন মিডিয়া এর একটি প্রচেষ্টা

To Top